-->
পাবনায় দিনের বেলায় এক ব্যবসায়ীর টাকা ও চেক ছিনতাই করার অভিযোগে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি  গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পাবনায় দিনের বেলায় এক ব্যবসায়ীর টাকা ও চেক ছিনতাই করার অভিযোগে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।



পাবনায় দিনের বেলায় এক ব্যবসায়ীর টাকা ও চেক ছিনতাই করার অভিযোগে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি  গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
পাবনায় দিনের বেলায় এক ব্যবসায়ীর টাকা ও চেক ছিনতাই 

রোববার দুপুরে পাবনা জেলার সাঁথিয়া উপজেলার ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের বৃহস্পতিপুর বাজার থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে সেখানে এক ব্যবসায়ীর নগদ প্রায় ছয় লাখ টাকা এবং সাত লাখ টাকার চেক ছিনতাই হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।
এ ঘটনায় পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন (২৭) ছাড়াও তার দুই সঙ্গী রানা হক (২৭) এবং শিপন হোসেনও (২৫) গ্রেপ্তার হয়েছেন।
পাবনা সদর সাকেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইবনে মিজান বলেন, ছিনতাইয়ের অভিযোগে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এছাড়াও ছাত্রলীগ নেতা রুহুল আমীনের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক অভিযোগ রয়েওছে এ কথা জানিয়েছে পুলিশ।
 বিবরণ দিতে গিয়ে আতাইকুলা থানার ওসি নাসিরুল ইসলাম জানান, রোববার দুপুরে সাঁথিয়া এলাকার ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম নগদ পাঁচ লাখ পঁচাশি হাজার আটশ টাকা এবং সাত লাখ টাকার চেক অগ্রণী ব্যাংকের আতাইকুলা শাখায় জমা দিতে যাচ্ছিলেন। পথে রাস্তাই বৃহস্পতি বার বাজার এলাকায় ভিড়ের মধ্যে রুহুল আমিন ও তার অনুসারীরা ছুরি মেরে তার কাছ থেকে টাকা ও চেক ছিনিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। ব্যবসায়ী সিরাজুলের চিৎকারে স্থানীয়রা রুহুল ও তার দুই সঙ্গীকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।
ওসি আরো জানান, গ্রেপ্তার যুবক দের আতাইকুলা থানায় আনা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে ‘নগদ চার লাখ বিশ হাজার টাকা’ উদ্ধার করা হয়েছে। বাকি টাকা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।


ads

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

admob ads